ফরিদপুরে বিশ্ব ক্লাবফুট(মুগুর পা) দিবস পালিত - SHOMOYSANGBAD.COM

শিরোনাম

Tuesday, June 11, 2019

ফরিদপুরে বিশ্ব ক্লাবফুট(মুগুর পা) দিবস পালিত


ফরিদপুর প্রতিনিধি :
ক্লাবফুট (মুগুর পা) বা পায়ের পাতার অভিশাপ মুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষে ফরিদপুরে র‌্যালীর মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে বিশ্ব ক্লাবফুট দিবস। এই বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল “সঠিক পনসেটি চিকিৎসায় ক্লাবফুট সম্পূর্ন ভালো হয়” সোমবার দিবসটি পালনে ফরিদপুর ডায়বেটিক এসোসিয়েশন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে অর্থপেডিকস সার্জারী বিভাগ ও গেøনকো ফাউন্ডেশন ‘ওয়াক ফর লাইফ’ প্রকল্পের যৌথ উদ্যোগে পালিত হয় দিবসটি।

 
সকালে ফরিদপুর ডায়বেটিক এসোসিয়েশন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের চত্বরে ক্লাবফুট আক্রান্ত শিশু ও তাদের বাবা মায়ের অংশ গ্রহনে র‌্যালীটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন অংশ প্রদক্ষিন করেন।
 
র‌্যালীতে এসময় ফরিদপুর ডায়বেটিক সমিতির সম্পাদক শেখ সামাদ, হাসপাতালের পলিচালক ডা. মোসলেম উদ্দিন, ডায়বেটিক এসোসিয়েশন মেডিক্যাল কলেজ এর অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ জহিরুল ইসলাম,সহযোগী অধ্যাপক ডা. দিলিপ কুমার দাস, ওয়াক ফর লাইফ এর ক্লিনিক ম্যানেজার মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদসহ অধ্যাপক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
 
ওয়াক ফর লাইফ এর ক্লিনিক ম্যানেজার মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ জানান, ফরিদপুর ডায়বেটিক এসোসিয়েশন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ক্লাবফুট নিয়ে কাজ শুরু ২০১৫ সালে, ফরিদপুর কাজ শুরু করে ২০১১ সাল হতে। এই পযর্ন্ত ফরিদপুরে ৭০২ জন মুগুর পা শিশুকে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। ক্লাবফুট, মুগুর পা’র বৈজ্ঞানিক নাম কনজেনিটাল টেলিপেজ ইকিউনো ভেরাস। গবেষনায় জানা যায় প্রতি হাজারে এক জন ক্লাবফুট রোগে আক্রান্ত হয়।
 
তিনি জানান, এ রোগে আক্রান্ত শিশুকে জন্মের পর থেকে তিন বছর পর্যন্ত থেরাপী চিকিৎসা দেওয়া হয়। এতে কাজ না হলে তিন বছর পর অপারেশন করি আমরা। সারা দেশে এই প্রর্যন্ত ২৪,৪৩৪ জন শিশু রোগীকে চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ করা হয়েছে।

No comments:

Post a Comment