ইতিহাস থেকে টিপু সুলতানকে বাদ দিচ্ছে বিজেপি - SHOMOYSANGBAD.COM

শিরোনাম

Friday, November 01, 2019

ইতিহাস থেকে টিপু সুলতানকে বাদ দিচ্ছে বিজেপি

সময় সংবাদ ডেস্ক//
ইতিহাস বিখ্যাত বীরের নাম মুছে ফেলতে চাইছে ভারতীয় বিজেপি সরকার। টিপু সুলতান তার নাম। উপমহাদেশে ব্রিটিশ ঔপনিবেশিকদের বিতাড়িত করতে তাদের হাতে প্রাণ দিয়েছিলেন অথচ ভারত সরকার তাকে জালিম আখ্যা দিয়ে ইতিহাস মুছে দেয়ার ঘৃণ্য চক্রান্তে লিপ্ত। এমন উদ্যোগ নিয়েছেন বিজেপি সরকারের কর্ণাটক রাজ্য।

কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা জানিয়েছেন, টিপু জন্ম-জয়ন্তী আগেই বন্ধ করে দেয়া হয়েছে, এখন স্কুলের পাঠ্য বইতে যে ইতিহাস লেখা আছে আমরা তাও উঠিয়ে দেয়ার কথা ভাবছি।



এ বিষয়ে যে কোন সময়ই সিদ্ধান্ত হতে পারে। রাজ্যের কোডাগু জেলার বিধায়ক এ. রঞ্জন দাবি করেন, টিপু সুলতান হিন্দুদের ওপর নির্যাতন করতেন।

টিপু সুলতানকে নিয়ে গবেষণা করতেন মহীশূর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক সেবাস্টিয়ান যোসেফ। তিনি বলেন টিপু সুলতানকে ভারতীয় ইতিহাসের একজন ‘খলনায়ক’ হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা করা হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, কুর্গ বা মালাবার উপকূলে যুদ্ধে নিঃসন্দেহে অনেক হিন্দুর প্রাণ গিয়েছিল। তবে এটাও সত্য যুদ্ধ হয়েছিল সেখানকার হিন্দু শাসকদের সঙ্গে। তাই সেটাকে ধর্মীয় অত্যাচার বললে ভুল হবে।

মহাভারতের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, মহাভারতের কাহিনিতে যারা নিহত হয়েছিলেন তারাও তো হিন্দুই ছিলেন। মহীশূর দখল করতে এসে মারাঠারা হিন্দুদের অতি পবিত্র তর্থী শৃঙ্গেরি মঠ ধ্বংস করেছিল।

‘শৃঙ্গেরি মঠ পুণর্নিমানে অর্থ দিয়েছিলেন টিপু সুলতান। এগুলোকে তো ধর্মীয় নিপীড়ন বলা যায় না,’ ব্যাখ্যা করছিলেন অধ্যাপক যোসেফ।

ব্রিটিশদের বিরুদ্ধে যুদ্ধে নিহত হয়েছিলেন টিপু সুলতান। মৃত্যুকালে তিনি ১২ জন পুত্র এবং পরিবার পরিজন রেখে যান। তার অনুপস্থিতিতে ব্রিটিশ সরকার তার পরিবারকে কলকাতায় স্থানান্তর করেন।

কলকাতায় সবচেয়ে পরিচিত মসজিদটি টিপু সুলতানের নামেই নামকরণ করা হয়। এছাড়াও শহরের অনেক গুরুত্বপূর্ণ সড়ক তার সন্তানদের নামে নামকরণ করা হয়।

No comments:

Post a Comment