রাজশাহীতে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনার ২টি যন্ত্রের উদ্বোধন, অনুষ্ঠানে জনতার ঢল - SHOMOYSANGBAD.COM

শিরোনাম

Saturday, January 11, 2020

রাজশাহীতে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনার ২টি যন্ত্রের উদ্বোধন, অনুষ্ঠানে জনতার ঢল



ওবায়দুল ইসলাম রবি, রাজশাহী প্রতিনিধি//
বর্ণাঢ্য আয়োজনে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনায় রাজশাহী শুরু হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর জন্মশতবার্ষিকী উদ্যাপন উপলক্ষে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা কার্যক্রম। বঙ্গবন্ধুকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ ঢাকার তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে অবস্থিত জাতীয় প্যারেড স্কয়ার থেকে সারাদেশে একযোগে ৮৭টি স্থানে ক্ষণগণনার শুভ উদ্বোধন করেন। এরমধ্যে রাজশাহীতে ২টি স্থানে ক্ষণগণনা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়।

রাজশাহী সিটি মেয়র এ.এইচ.এম খায়রুজ্জামান লিটন রাজশাহীতে ক্ষণগণনা কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে নগর ভবন ও সাহেব বাজার বড় মসজিদ চত্বরে ২টি ক্ষণগণনা যন্ত্র স্থাপন এবং প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান বড় পর্দায় সরাসরি সম্প্রচারের আয়োজন করেন । সরকার ১৭ মার্চ ২০২০ হতে ১৭ মার্চ ২০২১ সাল পর্যন্ত সময়কালকে মুজিববর্ষ ঘোষণা করেছে ।

আজ দুপুর ২টার পর থেকে নগরভবনে জড় হতে থাকে রাজশাহীর সকল সরকারি অফিসের উর্ধ্বতন ও সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীবৃন্দসহ সর্বস্তরের জনসাধারণ। সিটি কর্পোরেশনের ৩০টি ওয়ার্ড কাউন্সিলের নেতৃত্বে প্রতিটি ওয়ার্ড থেকে র‌্যালি নিয়ে আয়োজনস্থানে যোগ দেন। হাজার হাজার জনসাধারণের ঢল নামে নগরভবন চত্বরে।

অনুষ্ঠানে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দরে অবস্থিত জাতীয় প্যারেড স্কয়ারে আয়োজিত অনুষ্ঠান সরাসরি দেখে আমরা ১৯৭২ সালের ১০ জানুয়ারির সেই মুহূর্তে যেন চলে গেলাম। যার রেশ এখনো রয়ে গেছে। আবেগঘন দিনটি স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রীও কেঁদেছেন। আমাদের এই আবেগ থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে লালন করতে হবে।

মেয়র আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে দেশকে গড়তে শুরু করেন। কিন্তু ষড়যন্ত্রকারী ঘাতকেরা বঙ্গবন্ধুকে তাঁর সোনার বাংলা গড়ার কাজ শেষ করতে দেননি। এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত করতে কাজ করছেন। আজ থেকে মুজিববর্ষের ক্ষণগণনা শুরু হলো। বছরব্যাপী রাজশাহীতেও বিভিন্ন কর্মসূচিতে মুজিববর্ষ উদযাপন করা হবে।

অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার মোঃ হুমায়ুন কবীর খোন্দকার, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য প্রফেসর সাইদুর রহমান খান, রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ হুমায়ুন কবির, রাজশাহী রেঞ্জ ডিআইজি একেএম হাফিজ আক্তার, জেলা প্রশাসক মোঃ হামিদুল হক, জেলা পুলিশ সুপার মোঃ শহিদুল্লাহ, রাজশাহীতে নিযুক্ত ভারতীয় সহাকারী হাইকমিশনার সঞ্জিব কুমার ভাটিসহ উর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তা ও কাউন্সিলবৃন্দ  উপস্থিত ছিলেন । এখানেও ২টি বড় পর্দায় প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। ক্ষণগণনার উদ্বোধন অনুষ্ঠানের পর নগর ভবনের গ্রিনপ্লাজায় অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।



No comments:

Post a Comment