পিরোজপুরে সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের ৩ সদস্য ও দন্ডপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেপ্তার - সময় সংবাদ | Popular Bangla News Portal

শিরোনাম

Wednesday, February 07, 2024

পিরোজপুরে সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের ৩ সদস্য ও দন্ডপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেপ্তার

পিরোজপুরে সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের ৩ সদস্য ও দন্ডপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেপ্তার
পিরোজপুরে সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের ৩ সদস্য ও দন্ডপ্রাপ্ত এক আসামীকে গ্রেপ্তার


পিরোজপুর প্রতিনিধি:

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলায় সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের ৩ সদস্য  এবং মঠবাড়িয়া এলাকায় ৫ বছরের দন্ডপ্রাপ্ত এক পালাতক আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার বিকেলে পিরোজপুরের পুলিশ সুপার মুহাম্মদ শরীফুল  ইসলাম এ প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যেমে এ তথ্য সাংবাদিকদের জানান।

 

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের  সদস্য  বরিশালের বানরীপাড়া এলাকার সুশান্ত চত্রবর্তীর পুত্র শুভঙ্কর ওরফে শুভ চক্রবর্তী (৪০), বরগুনার বড়ইতালা ধাড়াকান্দা এলাকার বারেক সিকদার (৩৯) ও বরগুনার শিয়ালিয়া এলাকার নুরুল ইসলাম সিকারের পুত্র সেলিম সিকদার (৫৩) এবং মাদক মামলায় গ্রেপ্তারকৃত হলো জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার পশ্চিম কবুতরখালী এলাকার আ. রশিদ ফরাজীর পুত্র রফিকুল ইসলাম (৩৭)।


প্রেস কনফারেন্সে পুলিশ সুপার মুহাম্মদ শরীফুল  ইসলাম বলেন, পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার  বৈঠাকাঠা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের কর্মকর্তারা গোপন  সংবাদের ভিক্তিতে মঙ্গলবার বৈঠাকাঠা বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে সন্দেহ ভাজন ডাকাত চক্রের সদস্য শুভঙ্কর ওরফে শুভ চক্রবর্তী , বারেক সিকদার ও সেলিম সিকদার নামের তিন জনকে আটক করে। 


পরে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ ও পুলিশের সিডিএমএস এর মাধ্যেমে নিশ্চিত হওয়া যায় যে আটককৃরা সংঘবদ্ধ ডাকাত চক্রের সদস্য। বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন জেলার থানায়  এদের মধ্যে  শুভঙ্কর ওরফে শুভ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে ডাকাতি, দস্যুতা, চুরি সহ বিভিন্ন অভিযোগ ৮ টি মামলা, বারেক সিকদারের নামে একই অভিযোগে ৭ টি মামলা ও রফিকুল ইসলামের নামে ডাকাতি, দস্যুতা, চুরি ৬ টি মামলা রয়েছে। 


এছাড়া দীর্ঘদিন যাবত বরিশাল, পটুয়াখালী, বরগুনা, পিরোজপুরের বিভিন্ন এলাকায় সংঘবদ্ধ ভাবে ডাকাতি করে আসছিলো।

 

এছাড়া পুলিশ সুপার মুহাম্মদ শরীফুল  ইসলাম আরো বলেন, পুলিশ মঙ্গলবার মঠবাড়িয়া এলাকার চিহ্নিত মাকদ ব্যবসায়ী ৫ বছরের দন্ডপ্রাপ্ত পালতক আসামী রফিকুল ইসলামকেও গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তার সকরের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ কার হবে। 




No comments: