ফরিদপুরে ইউপি সদস্য এর উপর হামলা, দোষিদের আটকের দাবি পরিবারের - SHOMOYSANGBAD.COM

শিরোনাম

Saturday, September 18, 2021

ফরিদপুরে ইউপি সদস্য এর উপর হামলা, দোষিদের আটকের দাবি পরিবারের

 


স্টাফ রিপোর্টার, ফরিদপুর :  
ফরিদপুরের সালথা উপজেলার যদুনন্দি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ও ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ইমরুল খান(৫০) এর উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। গত শুক্রবার চাদাঁর দাবিতে সন্ত্রাসীরা এই হামলা চালায়। পরে স্থানীয়রা মারাত্বক আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। এদিকে তার উপর হামলার ঘটনায় দোষিদের বিচার দাবীতে জরুরী এক সংবাদ সম্মেলন করেছে পরিবারের সদস্যরা।  


শনিবার দুপুরে ফরিদপুরে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলন থেকে লিখিত বক্তব্যে তার মেয়ে নিতু খান বলেন, তিনলাখ টাকা চাঁদা না দেবার কারনে বর্তমান ইউপি সদস্য ইমরুল খানকে শুক্রবার সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্বক ভাবে আহত করে। বর্তমানে সে মারাত্বক আহত অবস্থায় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এ ঘটনায় সালথা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়। কিন্তু এখনো আসামীদের আটক করতে পারেনি পুলিশ। হামলার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের দাবী জানান ইউপি সদস্যের স্বজনেরা। 


সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, তার স্ত্রী মোসা. ফাহিমা খানম, বড় ভাই হান্নান খান, মেয়ে নিতু খান, ছোট শিশু সন্তান আবদুল্লা খান সহ প্রিন্ট ও ইলেকটনিক্স মিডিয়ার কর্মরত সাংবাদিকরা। 


আহত ইমরুলের ছোট ভাই রাজু বলেন, খারদিয়া গ্রামের ইরন খন্দকার, রাজন খন্দকার, ওহিদ খন্দকার, হিমায়েত মোল্যা ইমরুল মেম্বারের কাছে তিন লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেন। টাকা না দেওয়ায় শুক্রবার তাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ওহিদ খন্দকারের বাড়ির সামনে হাতুড়ি ও রড় দিয়ে বেধরক পিটিয়ে আহত করে। এতে তার দুই পায়ের হাড্ডি ভেঙ্গে গেছে। 


ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর মিয়া বলেন, ইমরুল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য তার উপর বর্বরচিত হামলার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। দোষী ব্যক্তিদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দাবী করছি। এদিকে হামলাকারীরা পলাতক থাকায় তাদের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। 


সালথা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আশিকুজ্জামান বলেন, এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

No comments:

Post a Comment