ফরিদপুরের আলতু খান জুট মিলের অন্যরকম এক প্রশংসনীয় উদ্যোগ- - SHOMOYSANGBAD.COM

শিরোনাম

Tuesday, March 24, 2020

ফরিদপুরের আলতু খান জুট মিলের অন্যরকম এক প্রশংসনীয় উদ্যোগ-

সঞ্জিব দাস, ফরিদপুর থেকে :
ফরিদপুরের মধুখালীর পৌরসভার পরীক্ষিতপুর ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের পাশে অবস্থিত দেশের অন্যতম শিল্প প্রতিষ্ঠান পান্ননা গ্রুপের  সহযোগী প্রতিষ্ঠান আলতু খান জুট মিল। এই মিলটিতে প্রায় তিন হাজার শ্রমিক কাজ করে। আর এই বিপুল সংখ্যক শ্রমিক এক সাথে কাজ করতে গিয়ে যেকোন সময় করনো ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে যে কেও। আর এই বিষয়টি মাথায় নিয়ে শ্রমিকদের নিরাপত্তার কথা ভেবে শ্রমিকদের নিরাপদে নিজ বাড়ীতে রাখার জন্য ১৫ দিনের ছুটি ঘোষনা করেছেন কর্তৃপক্ষ। একই সাথে তাদের হাতে তুলে দেয়া হচ্ছে এক সপ্তাহের বেতন সহ প্রতি জন শ্রমিককে ২৫ কেজি চাল, ৫ কেজি  আলু, ২কেজি  মশুর ডাল এবং ১ লিটার সয়াবিন তেল। আর এমন ঘোষনাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন শ্রমিকসহ স্থানীয়রা। সম্প্রতি দেশব্যাপী করোনা ভাইরাসে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে এ পদক্ষেপ  গ্রহণ করা হয় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়। 


আলতু খান জুট মিলের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ নাজিমুদ্দিন জানান, মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) হতে আগামী ৮ এপ্রিল পর্যন্ত ১৫ দিনের জন্য মিলের উৎপাদন কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। আমরা এই আপদকালীন সময়ের জন্য প্রত্যেক শ্রমিককে তাদের পাওনা মজুরী পরিশোধের পাশাপাশি ২৫ কেজি করে চাল, পাঁচ কেজি আলু, দুই কেজি ডাল ও ১ কেজি করে তেল প্রদান করেছি। তিনি জানান, এই পাটকলে প্রায় তিন হাজার শ্রমিক রয়েছেন। 


মধুখালী উন্নয়ন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা ও মধুখালী বাজার বণিক সমবায় সমিতি লিঃ এর সাধারন সম্পাদক মির্জা মাঝাহারুল ইসলাম মিলন জানান, খুবই ভালো উদ্যোগ নিয়েছেন পান্না গ্রæপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আলহ্াজ্ব মোহাম্মাদ লোকমান হোসেন খান। তাকে অসংখ্য ধন্যবাদ শ্রমিকদের কথা ভেবে সকলকে নিত্য প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার জন্য। বিষয়টি এখন অন্য সব মালিকদের জন্য উদাহরন হতে পারে।


এদিকে এমন ঘোষনায় ফরিদপুরের বিশিষ্টজনেরা মিল কৃতপক্ষকে ধন্যবাদ দিয়ে বলেছেন এখন এই সময়ে অন্যসব মিল এমন উদ্যোগ নেবে এটাই হোক সকলের প্রত্যাশা। সাময়িক সময়ের জন্য কর্মহীন হলেও মিল কর্তৃপক্ষের এই উদ্যোগে সেখানে কর্মরত সাধারণ শ্রমিকেরা সন্তোষ প্রকাশ করেন। ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার পরীক্ষিতপুরে অবস্থিত এই আলতু খান জুট মিলটি গত এক দশক আগে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিমাসে প্রায় ২৩ টন উন্নতমানের কার্পেটিং সুতা ও বস্তা তৈরির সুতা তৈরি হয়। যা ফরিদপুর অঞ্চলের একটি প্রসিদ্ধ জুট মিল হিসেবে পরিচিত।  


No comments:

Post a Comment